বেহালায় সম্পত্তির লোভে প্রতিবন্ধী বোনকে খুনের অভিযোগ দিদি-জামাইবাবুর বিরুদ্ধে, অভিযুক্তকে মার প্রতিবেশীদের

বেহালা:  মায়ের সম্পত্তির পুরোটাই হাতাতে প্রতিবন্ধী বোনকে খুনের অভিযোগ দিদি-জামাইবাবুর বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল বেহালার ব্রজেন মুখার্জি রোড। বিয়ের পরও স্বামীর সঙ্গে বাপের বাড়িতেই থাকতেন কেয়া মণ্ডল। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, বাপের বাড়ির গোটা সম্পত্তিটাই হাতানোর ছক কষেছিলেন কেয়া ও তাঁর স্বামী প্রবীর মণ্ডল। সম্পত্তি লিখে দেওয়ার জন্য বৃদ্ধা মাকে প্রায়শই মারধর করা হত বলে অভিযোগ। এমনকী, প্রতিবন্ধী বোন কাকলি দাসকেও খেতে দেওয়া হত না বলে অভিযোগ।

এরই মাঝে গতকাল রাত পৌনে দশটা নাগাদ বাড়ি থেকে কাকলি দাসের মৃতদেহ বের করতে দেখেন প্রতিবেশীরা। মৃতার ডেথ সার্টিফিকেটে অপুষ্টি ও হৃদযন্ত্র বিকলের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। মৃত্যুর সময়কাল নিয়েও মৃতার দিদির বয়ানের সঙ্গে ডেথ সার্টিফিকেটে উল্লেখিত সময়ের ফারাক রয়েছে। এরপরই দিদি কেয়া মণ্ডল ও তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। খুনের অভিযোগে মৃতার দিদির উপর চড়াও হন প্রতিবেশী মহিলারা। চলে চড়-থাপ্পর। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Releated Post