ভারতীয়দের ‘গুড মর্নিং’ মেসেজে বিরক্ত গোটা বিশ্ব

ঘুম থেকে উঠেই হোয়াটসঅ্যাপে ভর্তি ‘গুড মর্নিং’ মেসেজ!

বন্ধুবান্ধব ও পরিজনদের পাঠানো প্রভাতের শুভেচ্ছাবার্তায় আপনি কি বিরক্ত? মোবাইল ফোনের মেমরিও ভরে যাচ্ছে ছবির বন্যায়?

 শুধু আপনি নন, বরং ভারতীয়দের ‘গুড মর্নিং’ বার্তায় ভুক্তভোগী গোটা বিশ্বই।সকাল দেশজুড়ে কয়েক কোটি ছবি চালাচালি হয় হোয়াটস অ্যাপে।

প্রতিদিন ভারতের তিনটির মধ্যে একটি স্মার্টফোনের মেমরি ভরে যায় ‘গুড মর্নিং’ মেসেজে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিন ১০টির মধ্যে একটি ফোনে মেমরি শেষ হয়।

 প্রতিদিন শুভেচ্ছাবার্তা চালাচালিতে ইন্টারনেট ট্রাফির জ্যামের সৃষ্টি হচ্ছে বলেও উঠে এসেছে সমীক্ষায়।

 কেন ভারতীয়দের ফোন বারবার হ্যাং হয়ে যায়, তা জানতে গবেষণা করেছে গুগল। তাতে জানা গিয়েছে, ‘গুড মর্নিং’ মেসেজই যত নষ্টের গোড়া।

 সমস্যা নিয়ে ঘাঁটতে গিয়ে গবেষকদের মত, সোশ্যাল মিডিয়ায় সঙ্গে মানিয়ে নিতে চাইছেন বয়স্করা।

 তাঁরা নিকটাত্মীয়দের শুভেচ্ছাবার্তা বেশি পাঠাচ্ছেন। অনেকেই দিন শুরু করছেন হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ পাঠিয়ে।

 ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের দাবি, গত ৫ বছরে পিনটারেস্টে ‘গুড মর্নিং’ ইমেজ সার্চিং দশ গুণ বেড়ে দিয়েছে।

 তবে আপনার কাকা-কাকিমাই নন, নিজের দলের জনপ্রতিনিধিদের মেসেজে পাঠান নরেন্দ্র মোদীও। তাঁর মেসেজের জবাব না-দেওয়ায়  সমালোচনাও করেছিলেন তিনি।

Releated Post